লন্ডন আক্রমণ: ওয়েস্টমিন্সটারে 'সন্ত্রাসী ঘটনার' ছবি। (blogkori.tk)

একজন পুলিশ অফিসার এবং হামলাকারীসহ চারজন নিহত হয়েছে এবং ২০জন ওয়েস্টমিন্সটারে 'সন্ত্রাসী ঘটনায়' আহত হয়েছে।


ওয়েস্টমিন্সটার প্রাসাদ এবং ওয়েস্টমিন্সটার ব্রিজে একটি 'সন্ত্রাসী ঘটনা' মোকাবেলায় পুলিশ পদক্ষেপ নিয়েছে। ঘটনায় একজন পুলিশ এবং আক্রমণকারীসহ চারজন নিহত হয় এবং ২০জন আহত হয়।



দুপুর ২টা ৪০ মিনিটের পরপরই যখন একজন পুলিশ অফিসার নিহত হয় এবং তার আক্রমণকারীকে পুলিশ সংসদ ভবন প্রাঙ্গণের ভেতরে গুলি করে, তখন জরুরী সেবা সার্ভিসগুলো গোটা এলাকা বন্ধ করে দেয়।



সংসদ চত্বরের ভেতরে একটি এয়ার অ্যাম্বুলেন্স অবতরণ করে




সংসদ সদস্য টোবিয়াস এলউড ছুরিকাহত পুলিশ অফিসার বাঁচানোর জন্য প্যারা-মেডিকদের সাহায্য করেন।





কাছেই দেখা যাচ্ছে, ওয়েস্টমিন্সটার প্রাসাদের ভেতরে পাথরের রাস্তায় পরে থাকা একজনের দিকে পুলিশ বন্দুক তাক করে আছে।



স্ট্রেচারে সন্দেহভাজন আক্রমণকারী

সন্দেহভাজন আক্রমণকারীকে স্ট্রেচারে করে অপেক্ষমাণ অ্যাম্বুলেন্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।




সংসদ ভবনের বাইরে কর্মরত পুলিশ

প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মেকে পুলিশ সংসদ ভবন থেকে তার কার্যালয় ডাউনিং স্ট্রিটে নিয়ে যায়।




সশস্ত্র পুলিশ সংসদ ভবনের ভেতরে লোকজনদের নিরাপত্তা দেয়, যখন হাউস অফ কমন্স-এর অধিবেশন স্থগিত করা হয় এবং সব দরজা বন্ধ করে দেয়া হয়।




ওয়েস্টমিন্সটার প্রাসাদের কাছে অ্যাম্বুলেন্স কর্মীরা আহতদের সেবা দিচ্ছে
ওয়েস্টমিন্সটার ব্রিজ এবং পার্লামেন্ট স্কয়ারের দিকের রাস্তায় অ্যাম্বুলেন্স কর্মীরা আহতদের সেবা দিচ্ছে, যেখানে একটি গাড়ি পথচারীদের ওপর চালিয়ে দেয়া হলে দুজন মারা যায়।





তারা বেশ কয়েকজন আহত ব্যক্তিকে চিকিৎসা দেয়, যাদের ওপরে গাড়িটি তুলে দেয়া হয়।






রাস্তা বন্ধ করে দেয়ার ফলে অনেক পর্যটক এবং লন্ডনবাসী আটকে যায়।





তারা ব্রিজ থেকে দৌড়ে নেমে পরে এবং পার্লামেন্ট স্কয়ার থেকে দূরে চলে যায়।




লন্ডন মেট্রোপলিটান পুলিশের সন্ত্রাস-বিরোধী বাহিনীর প্রধান মার্ক রোলি বলেন, ''আজ এরকম একটি দিন যার জন্য আমরা প্রস্তুতি নিয়েছিলাম, কিন্তু আশা করেছিলাম সেটা কখনোই ঘটবে না।''




টেমস নদীতে পুলিশের প্যাট্রোল বোট নামানো হয়। একজন নারী নদীতে লাফিয়ে পরার পর তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।


www.blogkori.tk

Blogkori

Phasellus facilisis convallis metus, ut imperdiet augue auctor nec. Duis at velit id augue lobortis porta. Sed varius, enim accumsan aliquam tincidunt, tortor urna vulputate quam, eget finibus urna est in augue.

Post a Comment