মজার জোকস ২৪টি- ডাক্তার আর রোগী (blogkori.tk)

ডাক্তার আর  রোগীর মজার জোকস



১.
ডাক্তার: আপনি চা, কপি, মদ, সিগারেট কী কী খান?
রোগী: থাক কিছু আনতে হবে না, আমি ওসব বাসা থেকে খেয়ে এসেছি

২.
রোগী: ডাক্তার সাহেব আমার পাতলা পায়খানা হয়েছে, আপনি ঔষধ দেন।
ডাক্তার: কেমন পাতলা?
রোগী: এমন পাতলা যে আপনি কুলি করতে পারবেন!
ডাক্তার: What! ওয়াক থু!

৩.
ডাক্তার: আপনি বাবা হচ্ছেন!
ভ্দ্রলোক: আমি যে বাবা হচ্ছি সেটা যেন আমার স্ত্রী না জানে!
ডাক্তার: কেন?
ভদ্রলোক: আমি তাকে "Surprise" দিতে চাই!
ডাক্তার: কি!

৪.
ডাক্তার: আপনার পেটে গ্যাস জমেছে।
রোগী: আস্তে বলুন গ্যাস নিয়ে সারা দেশে টানাটানি; যদি কউ জনাতে পারে তাহলে আমার ১২টা বাজবে!

৫.
রোগী: কাল হা করে ঘুমাতে যেয়ে আমার মুখের ভিতর একটা ইঁদুর ঢুকে গেছে।
ডাক্তার: আজ হা করে মুখের ভিতর একটা বিড়াল ঢুকিয়ে দিয়ে, ইঁদুর কে ধরবেন।

৬.
রোগী: কি ব্যাপার আপনার মলম যে কাজ করছে না?
ডাক্তার: মলক কোথায় লাগিয়েছেন?
রোগী: জাম গাছে।
ডাক্তার: জাম গাছে কেন?
রোগী: আপনি তো বলেছেন, যে জায়গায় ব্যাথা পেয়েছি সে জায়গায় লাগাতে!

৭.
ডাক্তার: বলছি না, এক বছরের শিশু যা খায় তাই খাবেন!
রোগী: পেরে উঠছি নাতো!
ডাক্তার: কি কি খাচ্ছেন?
রোগী: মাটি, জুতার ফিতা, কাগজ ইত্যাদি!

৮.
রোগী: ডাক্তার আমি কম শুনি।
ডাক্তার: বলেন তো ছয়!
রোগী: নয়।
ডাক্তার: মরাহাবা! আপনিতো কানে বেশি শোনেন!

৯.
ডাক্তার: কি সমস্যা?
রোগী: আমার পেটের ভিতর আগুন লেগে গেছে!
ডাক্তার: কি! বুঝলেন কি ভাবে?
রোগী: গত কয়েকদিন ধরে, আমার মুখ দিয়ে ধোয়া বের হচ্ছে।

১০.
রোগী: স্যার আমার ওজন কমাতে চাই!
ডাক্তার: সকালে দুইটা রুটি, দুপুরে হাফপ্লেট ভাত ও রাতে একটা রুটি খাবেন।
রোগী: এগুলো কি খাওয়ার আগে খাবো না পরে খাবো?

১১.
ডাক্তার: আজ কেমন আছেন?
রোগী: ভালো তবে শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে খুব কষ্ট হচ্ছে!
ডাক্তার: চিন্তার কিছুনা, ওটা যাতে বন্ধ হয় সে ব্যবস্থা করছি।

১২.
ডাক্তার: অভিনন্দন! আপনার জমজ বাচ্ছা হয়েছে।
মহিলা: হবেইতো! Filmকি এমনি এমনি দেখেছি! Dhom-2, Housefull-2, Jannat-2, Raz-2.
ডাক্তার: ভাগ্যিস Dhilli-6 দেখেননি!

১৩.
ডাক্তার: কি সমস্যা?
রোগী: আমার খাওয়ার পর ক্ষিদা চলে যায়।
ডাক্তার: এই ঔষুধ টা খাবেন ঘুমানোর ৫ মিনিট পর আর এটা ঘুম থেকে ওঠার ১০ মিনিট আগে।

১৪.
রোগী: আমার ভীষণ পেট ব্যাথা!
ডাক্তার: আপনার পায়খানা কেমন?
রোগী: গরীব মানুষ পায়খানা আর কেমন হবে! ৩ পাশে বেড়া, আর সামনে ছিড়া ছালার পরদ্দা।

১৫.
ডাক্তার: কি সমস্যা আপনার?
রোগী: আমার নিজেকে একটা মুরগি মনে হয়।
ডাক্তার: কখন থেকে এ সমস্যা?
রোগী: হয়তো যেদিন আমি ডিম ছিলাম ঠিক তখন থেকে এ সমস্যা!

১৬.
ডাক্তার: আপনার কি সমস্যা?
রোগী: আমি কাল রাতে স্বপ্নে দেখেছি এক বিশাল তরমুজ খেয়েছি!
ডাক্তার: এত ভাল।
রোগী: কিন্তু ঘুম ভাঙ্গার পর দেখি আমার কোল বালিশ নাই!

১৭.
রোগী: এই ঔষুধ খেলে আমার অসুখ সারবেতো?
ডাক্তার: আস্থে আস্থে সেরে যাবে।
রোগী: তাহলে আমি আসি স্যার।
ডাক্তার: আমার ফী দিয়ে যান।
রোগী: আস্থে আস্থে দিয়ে যাবো।

১৮.
ডাক্তার: ভালো স্বাস্থের জন্য প্রত্যেকদিন ব্যায়াম করবেন।
রোগী: আমি প্রত্যেকদিন ক্রিকেট খেলি।
ডাক্তার: কতক্ষণ খেলেন?
রোগী: যতক্ষণ ব্যাটারিতে চার্জ থাকে।

১৯.
ডাক্তার: কী ব্যাপার! আপনি চিন্তিত কেন?
রোগী: কারণ আমি যে গাড়ীর সাথে এ্যাক্সিডেন্ট করেছিলাম তার পিছনে লেখা, আবার দেখা হবে।

২০.
নার্স: স্যার আপনার স্ত্রীর ফোন।
ডাক্তার: তাতে কি হয়েছে?
নার্স: সে আপনাকে Kiss দিতে বলেছে।
ডাক্তার: আমি এখন ব্যস্ত। আমি তোমাকে দিচ্ছি, তুমি তা আমার স্ত্রীকে দিয়ে দিও।

২১.
রোগী: ডাক্তার সাহেব আমি ঘোড়ার মত কাজ করি, গরুর মত খাই, কুকুরের মত ক্লান্ত হয়ে পরি। কি করবো?
ডাক্তার: আমি কি ভাবে বলবো? আমিতো পশুর ডাক্তার নই!

২২.
রোগী: আমি একটা কলম গিলে ফেলেছি।
ডাক্তার: কিছু কাগজ গিলে ফেলেন।
রোগী: কেন ডাক্তার?
ডাক্তার: কবিতা, গল্প, উপন্যাস বের হয়ে আসবে।

২৩.
ডাক্তার: এক্সরে তে দেখলাম আপনার পেটে ওনেক গুলো চামচ, কেন বলেনতো?
রোগী: আপনি তো বলেছেন প্রত্যেকদিন দু’চামচ করে খেতে।

২৪.
ডাক্তার: আমার Prescription Follow করছেন তো?
রোগী: ওটা Follow করলে আমি মরে যেতাম!
ডাক্তার: কেন?
রোগী: ওটা যে চার তলার ছাদ থেকে পরে গিয়েছিল।

Blogkori

Phasellus facilisis convallis metus, ut imperdiet augue auctor nec. Duis at velit id augue lobortis porta. Sed varius, enim accumsan aliquam tincidunt, tortor urna vulputate quam, eget finibus urna est in augue.

Post a Comment